লিনাক্সের জন্য সেরা ৩ টি ভিডিও এডিটর

লিনাক্সের জন্য সেরা ৩ টি ভিডিও এডিটর

লিনাক্সের জন্য সেরা ৩ টি ভিডিও এডিটর
লিনাক্সের জন্য সেরা ৩ টি ভিডিও এডিটর

যখনই ফ্রি ভিডিও এডিটিং সফটওয়ার এর কথা আসে তখন সবাই এক বাক্যে বলে দেয় উইন্ডোজ মুভি মেকার এবং আই মুভির নাম।

কিন্তু দুঃখের বিষয় উপরের কোনটিই লিনাক্স এর জন্য এভেইলেভল না। কিন্তু তাই বলে  হতাশ হবেন না, আমরা আজকে ফ্রি ৩ টি অসাধারণ ভিডিও এডিটর এর কথা বলব যেগুলো  লিনাক্সে চলবে একদম স্মুথ।

লিনাক্সের জন্য সেরা ৩ টি ভিডিও এডিটর

আপনার যদি সম্পুর্ন বিস্তারিত পড়ার সময় না থাকে তাহলে নিচ থেকে কুইক ওভারভিউ  দেখে নিতে পারেন। এবং বেশি বিস্তারিত জানতে পুরো পোস্ট পড়তে পারেন। 

ভিডিও এডিটরপার্পোজধরন
Kdenliveসাধারণ ভিডিও এডিটের জন্যফ্রি এবং ওপেন সোর্স
OpenShotসাধারণ ভিডিও এডিটের জন্যফ্রি এবং ওপেন সোর্স
Shotcutসাধারণ ভিডিও এডিটের জন্যফ্রি এবং ওপেন সোর্স

১। Kdenlive

 Kdenlive হচ্ছে KDE এর ফ্রি এবং ওপেন সোর্স ভিডিও এডিটিং সফটওয়ার যেটা আপনাকে ডুয়েল ভিডিও মনিটর, মাল্টি  ট্র্যাক টাইমলাইন, ক্লিপ লিস্ট, কাস্টোমাইজেবল লেয়াউট সাপোর্ট, ব্যাসিক  ইফেক্ট এবং ট্রাঞ্জিশন ব্যবহারের সুযোগ করে দিবে।

এটা অনেক ধরনের  ফাইল ফরম্যাট এবং রেকর্ড ফরম্যাট সাপোর্ট করে। যেমন raw, avi, dv, mpeg2,  mpeg4, h.264, AVCHD, HDV, XDCAM-HD™ streams, IMX™  (D10) streams, DVCAM (D10) , DVCAM, DVCPRO™, DVCPRO50™ streams, এবং DNxHD™ streams

আপনি যদি আইমুভির অল্টারনেটিভ খুঁজে থাকেন তাহলে এটা হবে আপনার জন্য বেস্ট চয়েস।

Kdenlive এর ফিচার

– মাল্টি ট্র্যাক ভিডিও এডিটিং
– অনেক বেশি ফরম্যাট এর অডিও এবং ভিডিও ফাইল ফরম্যাট সাপোর্ট করে
– ইন্টারফেস এবং শর্টকাট কনফিগার করা যায়
– সহজেই টেক্সট, ইমেজ বসানো যায়
– অনেক অনেক ইফেক্ট এবং ট্রাঞ্জিশন আছে
– প্রক্সি এডিটিং
– অটো সেভ
– অনেক বেশি হার্ডওয়ার সাপোর্ট করে
– কি ফ্রেম ইফেক্ট

সুবিধা

– সব ধরনের ভিডিও এডিটিং এর জন্য পারফেক্ট
– যারা ভিডিও এডিটিং এর সাথে একটু পরিচিত তাদের জন্য সবথেক বেশি ভালো

অসুবিধা

– যদি আপনি খুব সিম্পল কোন সল্যুশন খুঁজতে থাকেন তাহলে এটাকে বেশ কনফিউজিং মনে হবে
– KDE সাপোর্টেড এর জন্য বেশ স্লো করে অন্য প্লাটফর্ম এ

ইন্সটল

Kdenlive আপনি সহজেই Snap ফরম্যাট আকারে পেয়ে যাবেন। আপনি উবুন্টু সফটওয়ার সেন্টারেও খুঁজলে সহজেই পেয়ে যাবেন। আর অন্য ডিস্ট্রিবিউশন এর জন্য নিচের লিংক ফলো করুন।

ডাউনলোড এবং ইন্সটল এর জন্য https://kdenlive.org/download/

২। OpenShot

OpenShot অন্য আরেকটা মাল্টি পার্পোজ লিনাক্স ভিডিও এডিটর। OpenShot আপনাকে ট্রাঞ্জিশন, ইফেক্ট, অডিও এডজাস্ট এর মতো অসাধারণ ফিচার দিয়ে জীবনকে সহজ করে তুলবে। এবং অবশ্যই এটাও আগের মত প্রায় সকল মিডিয়া ফরম্যাট সাপোর্ট করে।

 

আরো আপনি আপনার ভিডিও ডিভিডিতে বার্ন করতে পারবেন, ডাইরেক্ট ইউটিউব কিংবা ভিমিও তে আপলোড করতে পারবেন। এছাড়া জনপ্রিয় সকল ফরম্যাট এ এক্সপোর্ট সুবিধা তো থাকছেই। এবং OpenShot হচ্ছে Kdenlive এর তুলনায় একটু সিম্পল। তাই সিম্পল কোন ভিডিও এডিট করতে চাইলে OpenShot হবে বেস্ট এডিটিং সফটওয়ার।

OpenShot ফিচার

– ক্রস প্লাটফর্ম সাপোর্ট করে। উইন্ডোজ, ম্যাক, লিনাক্স সব জায়গায় ব্যবহার যোগ্য
– মাল্টি ট্র্যাক ভিডিও এডিটিং
– অনেক বেশি ফরম্যাট এর অডিও এবং ভিডিও ফাইল ফরম্যাট সাপোর্ট করে
– ইন্টারফেস এবং শর্টকাট কনফিগার করা যায়
– সহজেই টেক্সট, ইমেজ বসানো যায়
– অনেক অনেক ইফেক্ট এবং ট্রাঞ্জিশন আছে
– প্রক্সি এডিটিং
– অটো সেভ
– অনেক বেশি হার্ডওয়ার সাপোর্ট করে
– কি ফ্রেম ইফেক্ট
– ড্রাগ এন্ড ড্রপ সাপোর্ট
– আনলিমিটেড ট্র্যাক এবং লেয়ার
– রিয়াল টাইম প্রিভিউ
– 3D এনিমেটেড টাইটেল এবং ইফেক্ট

সুবিধা

– সব ধরনের ভিডিও এডিটর এর উপযোগী
– ম্যাক, উইন্ডোজ এবং লিনাক্স সব জায়গায় এভেইলেভল

অসুবিধা

– এটা সিম্পল লাগতে পারে তবে প্রফেশনাল হলে এটার ফিচার গুলো আপনাকে মুগ্ধ করবে।
– খুব প্রফেশনাল ভাব আসবে না যখন এডিট করবেন।

ইন্সটল

OpenShot সব লিনাক্স ডিস্ট্রোর জন্যই তাদের অফিশিয়াল রিপোজেটরি তে এভেইলেভল। আপনি শুধুমাত্র তাদের সফটওয়ার সেন্টার থেকে খুঁজলেই পেয়ে যাবেন।

এছাড়া নিচের লিংক ফলো করলে বিস্তারিত পেয়ে যাবেন।

ডাউনলোড এবং ইন্সটল এর জন্য https://www.openshot.org/download/

৩। Shotcut

Shotcut অন্য আরেকটা ভিডিও এডিটিং সফটওয়ার যেখানে আপনি আগের Kdenlive এবং OpenShot এর সব গুলো ফিচার ব্যবহার করতে পারবেন। যদিও একই রকম ফিচার তবে Shotcut অন্যগুলোর তুলনায় আরো এডভান্স এবং 4k ভিডিও সাপোর্ট করে।

অনেক বেশি অডিও, ভিডিও ফরম্যাট এর সাপোর্ট, ট্রানজিশন, এবং ইফেক্ট সহ আরো অনেক ফিচার সমৃদ্ধ Shotcut ভিডিও এডিটর।

Shotcut ফিচার

– ক্রস প্লাটফর্ম তাই উইন্ডোজ, ম্যাক সবজায়গায় কাজ করে
– ন্যাটিভ টাইমলাইন এডিটিং
– অডিও ফিল্টার, মিক্স এবং ইফেক্ট এড করার সুবিধা
– ভিডিও ট্রানজিশন এবং ফিল্টার
– মাল্টিট্র্যাক থাম্বনেল এর সাথে টাইমলাইন এবং ওয়েভফর্ম এর সুবিধা
– আনলিমিটেড আন্ডূ এবং রিডূ এর সুবিধা
– ক্লিপ রিসাইজ, স্কেল, ট্রিম এর মতো রোটেশন এর সুবিধা
– এক্সটারনাল মনিটর এবং এক্সট্রা ডিস্প্লে ব্যবহারের সুবিধা

সুবিধা

– সব ধরনের ভিডিও এডিটিং এর জন্য বেস্ট
– 4k ভিডিও সাপোর্ট করে
– ক্রস প্লাটফর্ম সাপোর্ট করে

অসুবিধা

– অনেক বেশি ফিচার এর কারণে বিগিনারদের জন্য একটু বেশি কঠিন হইয়ে যায়

ইন্সটল

Shotcut আপনি সহজেই Snap ফরম্যাট আকারে পেয়ে যাবেন। আপনি উবুন্টু সফটওয়ার সেন্টারেও খুঁজলে সহজেই পেয়ে যাবেন। আর অন্য ডিস্ট্রিবিউশন এর জন্য নিচের লিংক ফলো করুন।

ডাউনলোড এবং ইন্সটল https://www.shotcut.org/download/

পরিশেষে

তো আজকের মতো এখানেই শেষ। ইনশাল্লাহ আগামী পর্বে দেখা হবে আরো তিনটি ফ্রি লিনাক্স ভিডিও এডিটর নিয়ে। সেই অবধি ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন, আসসালামু আলাইকুম।

Image Source: Official Website

You Might Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *